সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ১১:৫৫ অপরাহ্ন
নোটিশ :
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে!! জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২-৬৪৫৭০৫
সংবাদ শিরোনাম
১৮তম শিক্ষক নিবন্ধন: প্রিলিতে পাস করেও লিখিত পরীক্ষা দেননি ১ লাখ ৩১ হাজার প্রার্থী কোটা আন্দোলনকারীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা শান্তিগঞ্জে অবৈধ রিংজাল জাল ও চায়না দুয়ারী পুড়িয়ে ধ্বংস শান্তিগঞ্জের পাথারিয়া এফআইভিডিবি আরইসিসি প্রকল্পের সহযোগিতায় ওর্য়াড সভা অনুষ্ঠিত  শান্তিগঞ্জের পূর্ব পাগলা ইউনিয়নে এফআইভিডিবি আরইসিসি প্রকল্পের সহযোগিতায় ওয়ার্ড সভা ব্রিটেনের জাতীয় নির্বাচনে আবারও এমপি হলেন জগন্নাথপুরের মেয়ে আফসানা ব্রাজিলকে টাইব্রেকারে হারিয়ে সেমিতে উরুগুয়ে ইকুয়েডরকে টাইব্রেকারে হারিয়ে সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনা কাল থেকে বৃষ্টি কমতে পারে ন্যায্য পেনাল্টি দেওয়া হয়নি ব্রাজিলকে, কনমেবলের ভুল স্বীকার

ইউপি চেয়ারম্যান সুফিকে প্রধান আসামী করে ২৪ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪
  • ৪৭ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ উপজেলার দরগাপাশা ইউনিয়নের সিচনি এলাকায় ইউপি চেয়ারম্যান সুফি মিয়ার ছেলে ফাহিম ও নাইমসহ সংঘবদ্ধ চক্রের অতর্কিত ছুরিকাঘাতে নোমান মাহমুদ রুমন(৩৫) হত্যার ঘটনায় দরগাপাশা ইউপি চেয়ারম্যান সুফি মিয়াসহ ২৪ জনকে অভিযুক্ত করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে৷

সোমবার(২৪ জুন) নিহত নোমান মাহমুদ রুমনের ভাতিজা এবং গুরুতর আহত সাবেক ইউপি সদস্য জামিল আহমদ পায়েলের পিতা মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে আজিজুর রহমান বাদী হয়ে এ মামলাটি দায়ের করেন।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় সিচনী পয়েন্টে জমি সংক্রান্ত বিরোধ ও  আধিপত্য বিস্তারের ধরে ইউপি চেয়ারম্যান সুফি মিয়ার দুই ছেলে ফাহিম আহমদ ও নাঈম আহমদ ও সংঘবদ্ধ চক্রের এলোপাতাড়ি  ছুরিকাঘাত শুরু করেন নোমান মাহমুদ রুমন ও সাবেক ইউপি সদস্য জামিল আহমদ পায়েলের উপর। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় দু’জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা নোমান মাহমুদ ওরফে রুমন মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনার ৪ দিন পর গতকাল সোমবার নিহত নোমান মাহমুদ রুমনের ভাতিজা এবং গুরুতর আহত সাবেক ইউপি সদস্য জামিল আহমদ পায়েলের পিতা মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে আজিজুর রহমান বাদী হয়ে দরগাপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুফিমিয়াকে প্রধান অভিযুক্ত করে ২৪ জনকে আসামী করে এবং ১০-১৫ জনকে অজ্ঞাত করে মামলাটি দায়ের করেন৷ এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে শান্তিগঞ্জ থানা পুলিশ৷ তবে হত্যার সাথে জড়িত মূল আসামীরা এখনো গ্রেফতার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী৷

এ ব্যাপারে শান্তিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেন হত্যা মামলার দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এই ঘটনায় আমরা ইতিমধ্যে ৬ জনকে গ্রেফতার করেছি। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর