শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:০১ অপরাহ্ন

pic
সংবাদ শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধু মডেল গ্রাম ডুংরিয়ার সভাপতি নজরুল, সম্পাদক জহিরুল  একুশের প্রথম প্রহরে শান্তিগঞ্জ প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন শান্তিগঞ্জে ভাষা শহীদদের স্মরণে সুলেমান জায়গীরদার অর্গানাইজেশনের  শ্রদ্ধা নিবেদন শান্তিগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন শান্তিগঞ্জে বিজ এর বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন দোয়ারার শুটকী তৈরির কাজ পরিদর্শনে শান্তিগঞ্জের সিবিও সদস্যরা সংসদে ব্যারিস্টার সুমনের ভুল ধরিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী এবার সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে যে প্রশ্ন করলেন ব্যারিস্টার সুমন ডিম পেঁয়াজ ও ব্রয়লার মুরগি চড়া দামে বিক্রি, বেড়েছে আদা-রসুনের দাম শান্তিগঞ্জের সিবিও সদস্যগণ দোয়ারাবাজারে শুটকী মাছ তৈরির কাজ পরিদর্শনে 
নোটিশ :
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে!! জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২-৬৪৫৭০৫
মন ভালো নেই ঋতুপর্ণার

মন ভালো নেই ঋতুপর্ণার

বিনোদন ডেস্কঃ

বেশ কয়েকদিন ধরে মন ভালো নেই দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর। কারণ তার প্রাণপ্রিয় মা হাসপাতালে। এ জন্য তিনি ভীষণ দুশ্চিন্তায়ও রয়েছেন।

এদিকে মেডিক্লেম সংস্থার বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ এনেছেন ঋতুপর্ণা। তার মা নন্দিতা সেনগুপ্ত ২৫ জানুয়ারি থেকে দক্ষিণ কলকাতার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। হাসপাতাল থেকে বৃহস্পতিবার তাকে ছুটি দেওয়া হয়।

কিন্তু ঋতুপর্ণার পরিবারের অভিযোগ, বিমা সংস্থা তাদের সঙ্গে অসহযোগিতা করছে। ফলে আজ (২ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পর্যন্ত মাকে হাসপাতাল থেকে বাড়ি নিয়ে যেতে পারেননি এ অভিনেত্রী।

 

ঋতুপর্ণার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ এবং মূত্রনালির সংক্রমণ নিয়ে ওই হাসপাতালে ভর্তি হন অভিনেত্রীর মা। বৃহস্পতিবার ডাক্তার তাকে বাড়ি যাওয়ার অনুমতি দেন। কিন্তু হাসপাতালের বিল নিয়ে বিমা সংস্থা পরিবারের সঙ্গে অসহযোগিতা করে চলেছে বলে অভিযোগ।

ফলে আজ বিকাল পর্যন্ত অভিনেত্রী মাকে বাড়ি নিয়ে যেতে পারেননি। ঋতুপর্ণার ভাই প্রদীপ্ত সেনগুপ্ত ভারতীয় একটি গণমাধ্যমকে বললেন, “মেডিক্লেম সংস্থা একের পর এক নথি চাইছে। আমরা সব দেওয়ার পরেও বলছে যে ‘ক্যাশলেস’ করা যাবে না। অথচ যা বিল হয়েছে, তাতে পলিসির চুক্তি অনুযায়ী পুরোটাই আমাদের বিমা সংস্থার থেকে পাওয়ার কথা।’’

 

তিনি আরও বলেন, ‘মায়ের বয়স হয়েছে। উনি বাড়ি যেতে চাইছেন। এ দিকে দুদিন ধরে আমাদের ঘোরানো হচ্ছে। হাসপাতালের বিলও বাড়ছে। এটা ঠিক নয়।’

ঋতুপর্ণা তার মাকে হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে শহরের বাইরে গিয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার তিনি শহরে ফিরেছেন। আজ তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি হাসপাতালেই যাচ্ছি। আমার ভাই রয়েছে ওখানে। ওরা এরকম কেন করছে বুঝতে পারছি না। আমার ধারণা, আমাদের বিমা এজেন্ট এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, সমস্যাটি বিমা সংস্থার। হাসপাতালের বিরুদ্ধে রোগীর পরিবারের কোনো অভিযোগ নেই। তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। যদি বিমা সংক্রান্ত সমস্যা না মেটে, সেক্ষেত্রে আজ বিল মিটিয়ে মাকে বাড়ি নিয়ে যেতে পারতেন ঋতুপর্ণা। পরে তিনি বিমা সংস্থার কাছে টাকা ফেরতের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 DakshinSunamganj24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com