বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৫১ পূর্বাহ্ন

pic
নোটিশ :
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে!! জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২-৬৪৫৭০৫
প্রেমিকার জন্য বন্ধুকে খুন করে বাবাকে এসএমএস

প্রেমিকার জন্য বন্ধুকে খুন করে বাবাকে এসএমএস

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ২৪ ডেস্ক::
বন্ধু জয়ের (১৫) প্রেমিকাকে নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করার জেরে খুন হয় পাবনার জেএসসি পরীক্ষার্থী আশিক মাহমুদ ওরফে অনি বাবু (১৪)।
২৬ নভেম্বর সন্ধ্যায় জয় একাই বাবুকে কুপিয়ে হত্যা করে। পরে আরেক বন্ধুকে ডেকে হলুদ ক্ষেতের মধ্যে গর্ত করে পুঁতে রাখে বাবুর মরদেহ। জয়ের পরিচিত এক ভ্যানচালক বাবুর মরদেহ বহন করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে এ হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দিয়েছে দুইদিন আগে গ্রেফতার হওয়া জয়।
এদিকে, জেএসসি পরীক্ষার্থী বাবু হত্যার প্রতিবাদে এবং হত্যাকারীকে গ্রেফতারের দাবিতে শনিবারও সদর উপজেলার দুবলিয়া বাজারে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ এলাকার সর্বস্তরের মানুষ।
নিখোঁজের চারদিনের মাথায় শুক্রবার বাবুর মরদেহ সদর উপজেলার দুবলিয়া পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন হলুদ ক্ষেতের মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করে পুলিশ। মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।
নিহত আশিক মাহমুদ অনি বাবু দুবলিয়া গ্রামের ব্যবসায়ী রবিউল প্রামাণিকের ছেলে। এ বছর দুবলিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জেএসসি পরীক্ষা দেয় সে। মরদেহ উদ্ধারের পরপরই বাবুর বন্ধু জয় এবং সাব্বিরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে সেখানে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে বন্ধুকে হত্যার কথা স্বীকার করে জয়।
জয়ের স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে আতাইকুলা থানা পুলিশের ওসি মো. মনিরুজ্জামান বলেন, জয় একাই এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। ২৬ নভেম্বর সন্ধ্যায় বাবার দোকান থেকে বাবু বাড়িতে যাওয়ার কথা বলে বের হয়।
কিন্তু বাড়িতে না গিয়ে বন্ধু জয়ের ডাকে সাড়া দিয়ে পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন মেহগনি বাগানের জঙ্গলে যায় বাবু। এখানে তারা নিয়মিত নেশা করতো। ওইদিন নেশার একপর্যায়ে জয়ের মোবাইলে প্রেমিকার ছবি দেখে অশ্লীল মন্তব্য করে বাবু।
প্রেমিকাকে নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করায় ক্ষিপ্ত হয় জয়। এ নিয়ে তাদের ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে বাবুকে কুপিয়ে হত্যা করে জয়। পরে জয় তার এক বন্ধুকে মোবাইলে ডেকে আনে। সেই সঙ্গে পরিচিত এক ভানচালকের সহায়তায় বাবুর মরদেহ হলুদ ক্ষেতে নিয়ে মাটি খুঁড়ে চাপা দিয়ে রাখে।
পরে হত্যাকাণ্ড ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করতে জয় ওইদিনই রাত ৮টা ১৭ মিনিটে বাবুর মোবাইল থেকে তার বাবা রবিউল প্রামাণিকের মোবাইলে এসএমএস পাঠায়। সেখানে লিখেছে, ‘আব্বু আমার ভালো লাগছে না। আমি ঢাকায় চলে যাচ্ছি। তোমরা ভালো থাকো।’
বাবুর মরদেহ উদ্ধারের পর বেরিয়ে আসে আসল রহস্য। এ ঘটনায় জয়ের অপর বন্ধু এবং ভ্যানচালককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 DakshinSunamganj24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com