বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৩১ পূর্বাহ্ন

pic
নোটিশ :
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে!! জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২-৬৪৫৭০৫
হারিয়ে যাওয়া শিশু কন্যাকে মা-বাবার হাতে তুলে দিল জগন্নাথপুর থানা পুলিশ

হারিয়ে যাওয়া শিশু কন্যাকে মা-বাবার হাতে তুলে দিল জগন্নাথপুর থানা পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টার ::
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে হারিয়ে যাওয়া শিশু কন্যাকে মা-বাবার হাতে তুলে দিল জগন্নাথপুর থানা পুলিশ। বুধবার রাতে হারিয়ে যাওয়া শিশু কন্যা কুলসুম বেগমকে তার মা-বাবার হাতে তুলে দেওয়া হয়। শিশুটি মা-বাবাকে পেয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে। এ সময় এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারনা হয়। শিশুটির হারানোর খবর দৈনিক যুগান্তর পত্রিকায় গতকাল বুধবার প্রকাশিত হলে। মা-বাবার দৃষ্টি আকর্ষন হয়। এ খবর পেয়ে ঢাকা যাত্রাবাড়ী থানার মাতুয়াল এলাকার বাসিন্দা শিশু কন্যাটির বাবা দুলাল মিয়া ও ফাতেমা বেগম বুধবার রাতেই জগন্নাথপুর থানায় আসেন এবং মেয়েকে নিয়ে যান।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার বিকেলে জগন্নাথপুর বাস স্ট্যান্ড থেকে সিলেটের উদ্দেশ্যে একটি যাত্রীবাহী মিনিবাস ছেড়ে যায়। পথিমধ্যে স্থানীয় হবিবপুর গ্রাম এলাকা থেকে কুলসুমা নামের ৭ বছরের এক শিশু কন্যা গাড়িতে উঠে। এ সময় গাড়ির হেলপার ভাড়া নিতে শিশুর কাছে যায় এবং তাকে জিজ্ঞাসা করে কোথায় যাবে। তখন শিশুটি কোন সদুত্তর দিতে না পারায় গাড়ি চালক, হেলপার ও গাড়িতে থাকা অন্যান্য যাত্রীদের সন্দেহ হলে শিশুটিকে ভবের বাজার বাস ম্যানেজার আবদুল কাদিরের কাছে রেখে যায়। পরে ম্যানেজার সহ স্থানীয় এলাকাবাসী শিশুটিকে জগন্নাথপুর থানা পুলিশে হন্তান্তর করেন।

এদিকে-থানায় পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে শিশুটি জানায়, তার নাম কুলসুমা বেগম। বয়স ৭ বছর। তার পিতার নাম দুলাল মিয়া। গ্রামের নাম ভৌলা, থানা তারাকান্দা-জেলা ময়মনসিংহ। এছাড়া তার মায়ের নাম ফাতেমা বেগম। গ্রামের নাম ফুল বাগিচা, থানা লাল মোহন-জেলা ভোলা। বর্তমানে ঠিকানা- ঢাকার যাত্রাবাড়ী থানায় বলে জানায়।
এ ব্যাপারে জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত মোঃ হারুনুর রশীদ চৌধুরীর সাথে আলাপ হলে তিনি বলেন, অনেক সন্ধান করে শিশু কন্যাটির মা-বাবার ঠিকানা সংগ্রহ করা হলে তারা গত রাতে এসে শিশুটিকে নিয়ে যায়।

তদন্তকারী দারগা এসআই সাইফুল ইসলাম জানান, শিশুটি পুরো ঠিকানা বলতে না পারায় তার মা-বাবাকে খোজে বের করতে বেগ পেতে হয়েছে। তবে শেষ পর্যন্ত আমরা শিশুটির মা-বাবাকে খোজে পেতে সক্ষম হই এবং বুধবার রাতে শিশুটিকে তাদের হাতে তুলে দেই।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 DakshinSunamganj24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com