মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:২২ অপরাহ্ন

pic
নোটিশ :
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে!! জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২-৬৪৫৭০৫
সিনহা হত্যাকাণ্ডে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হতে হবে: সেনাপ্রধান

সিনহা হত্যাকাণ্ডে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হতে হবে: সেনাপ্রধান

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ২৪ ডেস্কঃ   অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের হত্যাকাণ্ডকে জঘন্যতম ঘটনা বলে আখ্যায়িত করেছেন সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। তিনি বলেন, যে ঘটনাটি ঘটেছে সেটি সবাই জানে। এটি অত্যন্ত জঘন্যতম একটি ঘটনা। এটার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হতে হবে।

বুধবার সকালে চট্টগ্রামের ভাটিয়ারীতে ২৪ পদাতিক ডিভিশনের ছয়টি ইউনিটের রেজিমেন্টাল কালার প্রদান অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

সেনাপ্রধান চট্টগ্রাম সেনানিবাসের ইস্টবেঙ্গল রেজিমেন্ট সেন্টার প্যারেড গ্রাউন্ডে পৌঁছলে জিওসি, আর্মি ট্রেনিং অ্যান্ড ডকট্রিন কমান্ড লে. জেনারেল এসএম শফিউদ্দিন আহমেদ এবং ২৪ পদাতিক ডিভিশন ও চট্টগ্রামের এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল এসএম মতিউর রহমান তাকে স্বাগত জানান। পরে প্যারেড কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর একটি চৌকস দল কুচকাওয়াজ প্রদর্শনসহ সেনাপ্রধানকে সালাম প্রদান করেন।

গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহ্যের ধারক ও বাহক ইউনিটসমূহ কর্তৃক সেনাবাহিনী তথা দেশমাতৃকার সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য রেজিমেন্টাল কালার প্রদান করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৬ সিগন্যাল ব্যাটালিয়ন, ১৮, ২০, ২১, ২২ এবং ২৩ বীর আজকের কালার প্যারেডে অংশগ্রহণ করে এবং প্রধান অতিথির কাছ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে রেজিমেন্টাল পতাকা গ্রহণ করে।

এ সময় ভাষণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন সেনাবাহিনীর প্রধান। তিনি বলেন, সেনাবাহিনীর সামরিক ঐতিহ্য অনুযায়ী যে কোনো ইউনিটের জন্য রেজিমেন্টাল কালার প্রাপ্তি অত্যন্ত গৌরবের বিষয়। সেনাপ্রধান ঊর্ধ্বতন নেতৃত্বের প্রতি আস্থা, পারস্পরিক বিশ্বাস, সহমর্মিতা এবং ভ্রাতৃত্ববোধ বজায় রেখে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সুশৃংখল, দক্ষ ও যোগ্য সেনাসদস্য হিসেবে গড়ে উঠার নির্দেশ দেন। সেই সঙ্গে তিনি সবাইকে পেশাদারিত্বের প্রত্যাশিত মান অর্জনের মাধ্যমে অভ্যন্তরীণ ও বাহ্যিক যে কোনো হুমকি মোকাবেলায় সদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে ঊর্ধ্বতন সেনাকর্মকর্তা ও বিভিন্ন পদবির সেনাসদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পরে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদ। এ সময় তিনি কক্সবাজারে পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের হত্যাকাণ্ডের ঘটনাকে অত্যন্ত জঘন্যতম ঘটনা আখ্যায়িত করে এর দৃষ্টান্তমূলক বিচার চান।

সেনাপ্রধান বলেন, সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে সরকারের কাছে কোনো সুপারিশ দেয়ার প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না। কারণ এ ঘটনার পরপরই সরকারের পক্ষ থেকে একটি যৌথ তদন্ত টিম গঠন করা হয়েছে। এ তদন্ত টিমের প্রতি সেনাবাহিনী এবং আমি নিশ্চিত পুলিশ বাহিনীরও এ ব্যাপারে সমর্থন রয়েছে। এ তদন্ত দল যেটা উপযুক্ত মনে করবে, সেটা সুপারিশ করবে। এখানে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে কোনো সুপারিশ করার সুযোগ আছে বলে আমি মনে করি না।

তদন্তে সন্তুষ্ট কিনা- সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে সেনাপ্রধান বলেন, এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হতে হবে। এটা তদন্তে বেরিয়ে আসবে এবং সাজাটা যখন হবে, তাহলেই সন্তুষ্টির প্রশ্ন আসবে। তার আগে সন্তুষ্টি কীভাবে বলব? বলার কোনো সুযোগ নেই।

সুত্র: যুগান্তর

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 DakshinSunamganj24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com