শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৫৯ অপরাহ্ন

pic
সংবাদ শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধু মডেল গ্রাম ডুংরিয়ার সভাপতি নজরুল, সম্পাদক জহিরুল  একুশের প্রথম প্রহরে শান্তিগঞ্জ প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন শান্তিগঞ্জে ভাষা শহীদদের স্মরণে সুলেমান জায়গীরদার অর্গানাইজেশনের  শ্রদ্ধা নিবেদন শান্তিগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন শান্তিগঞ্জে বিজ এর বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন দোয়ারার শুটকী তৈরির কাজ পরিদর্শনে শান্তিগঞ্জের সিবিও সদস্যরা সংসদে ব্যারিস্টার সুমনের ভুল ধরিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী এবার সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে যে প্রশ্ন করলেন ব্যারিস্টার সুমন ডিম পেঁয়াজ ও ব্রয়লার মুরগি চড়া দামে বিক্রি, বেড়েছে আদা-রসুনের দাম শান্তিগঞ্জের সিবিও সদস্যগণ দোয়ারাবাজারে শুটকী মাছ তৈরির কাজ পরিদর্শনে 
নোটিশ :
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে!! জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২-৬৪৫৭০৫
মার্চ শেষে করোনা ভাইরাস অদৃশ্য হওয়ার সম্ভাবনা: নোবেলজয়ী বিজ্ঞানী

মার্চ শেষে করোনা ভাইরাস অদৃশ্য হওয়ার সম্ভাবনা: নোবেলজয়ী বিজ্ঞানী

করোনা ভাইরাসের মহামারী প্রভাব খুব শিগগিরই কমে যাবে বলে ভবিষ্যদ্বাণী করেছে নোবেলবিজয়ী রসায়নবিদ মাইকেল লেভিট। একই সঙ্গে তিনি দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, মার্চ মাসের শেষে ভাইরাসটি চীন থেকে অদৃশ্য হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। খবর জেরুজালেম পোস্টের।

লেভিট বলেন, প্রাথমিকভাবে চীনের হুবেই প্রদেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হার প্রতিদিন ৩০ শতাংশ হারে বাড়ছিল। কিন্তু ৭ ফেব্রুয়ারির পর থেকে আক্রান্তের সংখ্যা সরলরৈখিকভাবে কমতে শুরু করে এবং নিহতদের সংখ্যাও একইভাবে কমছিল।
এভাবে লেভিট এই ‘বক্ররেখার নাটকীয় পরিবর্তনটি মধ্যবিন্দু চিহ্নিত করেছিলেন’। যার মাধ্যমে তিনি ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন যে, ১৫ দিনের মধ্যে চীনের পরিস্থিতি আরও উন্নত হবে। এখন চায়নায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা নাটকীয়ভাবে হ্রাস পেয়েছে। দেশটিতে রোববার নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩৯। যারা বিদেশ ভ্রমণকারীদের মাধ্যমে আক্রান্ত হয়েছেন।
লেভিট আরো বলেন, করোনা নিয়ে কথা উঠলেই এটি মানুষকে অনেক ভয় দেখায়। কারণ প্রতিদিনই তারা নতুন নতুন আক্রান্তের খবর পায়। তবে বিষয় হচ্ছে, সংক্রমণের হার ধীর হয়ে যাওয়ার অর্থ হলো মহামারিটির সমাপ্তি খুব কাছাকাছি এসে গেছে।
এই নোবেল বিজয়ী আরও দাবি করেন, বেশিরভাগ ব্যক্তির শরীরে কোভিড-১৯ প্রতিরোধের প্রাকৃতিক রোগপ্রতিরোধ ব্যবস্থা রয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়া ইতিমধ্যে ভাইরাস সংক্রমণের মধ্য অবস্থা অতিক্রম করেছে এবং ইতালিতে বয়স্ক জনসংখ্যার হার বেশি থাকায় দেশটিতে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 DakshinSunamganj24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com