রবিবার, ২৬ Jun ২০২২, ১১:২৬ পূর্বাহ্ন

pic
নোটিশ :
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে!! জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২-৬৪৫৭০৫
সংসদে প্রধানমন্ত্রীর শাড়ির প্রশংসা, অতঃপর…

সংসদে প্রধানমন্ত্রীর শাড়ির প্রশংসা, অতঃপর…

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ২৪ ডেস্কঃ   
আসছে ঋতুরাজ বসন্ত। তার আগেই জাতীয় সংসদে বসন্তের রং নিয়ে হয়ে গেল এক পশলা সরস আলোচনা।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শাড়ির রঙের প্রশংসা করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর টিপ্পনী সহ্য করতে হলো জাতীয় পার্টির (জাপা) সাংসদ মুজিবুল হককে। পরে জাপার আরেক সাংসদও মুজিবুল হককে টিপ্পনী কাটেন।
জাতীয় সংসদে আজ বুধবার প্রশ্নোত্তরপর্বে সম্পূরক প্রশ্ন করতে গিয়ে জাতীয় পার্টির সাংসদ মুজিবুল হক বলেন, ‘মাননীয় সংসদ নেত্রীকে দেখে আজকে মনে হলো যে বসন্ত খুব শিগগির।’
প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে বর্ণিল শাড়ি পরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কিছুটা মজা করে বলেন, ‘আমার মনে হয় মাননীয় সংসদ সদস্যের জানা উচিত বসন্তের যে রং সেটা কিন্তু বাসন্তী রং। আমি কিন্তু বাসন্তী রং পরিনি। এখানে অনেক রং আছে। কালোও আছে। আমার মনে হচ্ছে মাননীয় সংসদ সদস্য কালার ব্লাইন্ড। এটা বাংলা করলে হয় রংকানা। জানি না, আজকে বাড়িতে গিয়ে ওনার কপালে কী আছে।’
প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যে সংসদ অধিবেশনকক্ষে হাসির রোল পড়ে।
এ আলোচনা এখানেই শেষ হয়নি। প্রশ্নোত্তর পর্ব শেষে আইন প্রণয়নের সময়ও এর রেশ দেখা যায়।
বাতিঘর বিল নিয়ে আলোচনায় অংশ নিয়ে জাতীয় পার্টির জ্যেষ্ঠ সাংসদ ফখরুল ইমাম বলেন, ‘আমার বন্ধু (মুজিবুল হক) শুধু কালার ব্লাইন্ড নন, প্রতিবন্ধীও। তিনি এদিক-ওদিক ঘাড় ঘোরাতে পারেন না।’ ফখরুল ইমাম বলেন, মুজিবুল হক অত দূরে বাসন্তী রং দেখলেও স্পিকারের শাড়ির রং দেখলেন না। সামনেই বিরোধীদলীয় নেত্রীর শাড়ির রং দেখলেন না।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 DakshinSunamganj24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com