বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন

pic
নোটিশ :
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে!! জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২-৬৪৫৭০৫
দক্ষিণ সুনামগঞ্জের পাগলায় ভূয়া ফেসবুক আইডি থেকে বিভিন্ন ব্যক্তির নামে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে

দক্ষিণ সুনামগঞ্জের পাগলায় ভূয়া ফেসবুক আইডি থেকে বিভিন্ন ব্যক্তির নামে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে

এন.এ নাহিদ:: দক্ষিণ সুনামগঞ্জের পাগলায় ভূয়া নাম ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একাধিক আইডি থেকে বিভিন্ন ব্যক্তির নামে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। পাগলার শীর্ষ রাজনীতিবিদ, শিক্ষক, সমাজ সচেতন শিক্ষানুরাগী, ক্রীড়াব্যক্তিত্ব এমনকি জনপ্রতিনিধিদের নামেও বিভিন্ন মিথ্যাচার করে তাদের মানহানি করা হচ্ছে। এ ছাড়াও এসব ভূয়া ফেসবুক একাউন্ট থেকে অতি কৌশলে উসকানি দেওয়া হচ্ছে সাম্প্রদায়িকতার, গোত্রবিবাদের। এসব আইডি থেকে পশ্চিম পাগলা ইউনিয়নের প্রথম শ্রেণির মানুষের পরিবার, ব্যক্তিগত দুর্বলতা ও বিভিন্ন গ্রামের আভ্যন্তরিন বিষয় নিয়েও উসকানিমূলক পোস্ট করা হয়। এ নিয়ে পাগলার সচেতন মানুষের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। চলছে বেনামা বা ভূয়া আইডির নামে মামলার প্রস্তুতিও। আশংকা বিরাজ করছে সব মহলে। বেনামে কোনো আইডির ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট দেখলে অধিকাংশরাই এক্সেপ্ট করছেন না রিকুয়েস্ট। এর থেকে প্রতিকার পাওয়ার অপেক্ষায় এলাকাবাসী।

পাগলার স্থানীয় ব্যক্তিদের সাথে আলোচনা করে জানা যায়, সত্য বাবা, পাগলা বাজার প্রতিদিন সংবাদ, পাগলা বাজার, মহাকাব্য ও নেতা মোদের কালাম ভাই এসব ভূয়া ফেসবুক একাউন্ট থেকে নিয়মিত বিরতিতে এলাকার প্রায় সকল গণ্যমান্য ব্যক্তির ব্যক্তিগত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে নেতিবাচকভাবে ফেসবুকে পাবলিক পোস্ট করেছে। যার অধিকাংশই মিথ্যা ও সম্মানহানিকর। এই মিথ্যা প্রচারণায় বিভ্রতকর অবস্থায় পড়তে হচ্ছে অনেককে। এছাড়াও হিন্দু মুসলমাদের উসকানি, গোত্রগত উসকানি ও মিথ্যা তথ্যে সমাজে বিশৃঙ্খলা বাধিয়ে রাখার একটি মাধ্যম হিসেবে কাজ করছে এসব ভূয়া একাউন্টগুলো। এ তো শুধু পাগলা চিত্র। সমস্ত উপজেলায়ও এমন একাধিক আইডি থেকে নানান মিথ্যাচার করা হচ্ছে। অনেক খোঁজাখোজির পরও তাদেরকে সরাসরি না পাওয়ায় এর প্রতিকার পেতে পাগলা থেকে একটি মহল দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানায় একটি মামলা করারও প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তারা।

এলাকাবাসী জানান- একটি ভূয়া ফেসবুক একাউন্ট থেকে যে হারে মিথ্যাচার করা হয় তা সত্যিই লজ্জাজনক। একটি সম্মানি পরিবারের একজন ব্যক্তিকে নিয়ে সাজিয়ে গুছিয়ে মিথ্যা বলা, মিথ্যা তথ্যের উপস্থাপন করা সত্যি ভূক্তভোগীর জন্য চরম অবমাননাকর। একজন জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদ, শিক্ষক, সমাজ সেবক ও ক্রীড়ামোদী এরা প্রত্যেকেই আমাদের সমাজের জন্য মঙ্গলজনক। তাদেরকে নিয়ে ধারাবাহিক মিথ্যাচার নিন্দনীয়। এসব আইডিকে আইনিভাবে মোকাবিলা করতে হবে। প্রশাসন এর উদ্যোগ নেবেন বলে ভুক্তভোগীরা আশাবাদী।

ক্রীড়ামোদী আতিকুর রহমান আতিক বলেন, আমরা চাই যারা এসব করছে তারা বন্ধ হোক। একজনের সাথে আরেকজনের বিরোধ থাকতে পারে, তাই বলে এভাবে ফেসবুকে সম্মানহানি করা অবশ্যই অপরাধ। এ অপরাধের দমন চাই। সকলে সম্মিলিতভাবে এর প্রতিরোধে কাজ করতে হবে। প্রয়োজনবোধে মামলা পর্যন্ত যেতে হবে।’

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূরুল হক বলেন, সম্প্রতি দেখেছি সত্য বাবা নামের একটি আইডি থেকে সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক পোস্ট করা হয়েছে। সে ব্যপারে মামলা করার প্রস্তুতিও নিচ্ছি। ইতোমধ্যে ওসি সাহেবের সাখে বিষয়টি নিয়ে কথাও বলেছি। এটি অবশ্যই জঘন্য ধরণের অপরাধ। এর প্রতিকার করা জরুরী। এরকম আরো কয়েকটি একাউন্টের নামে দ্রুত মামলা করবো।’

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজি আবুল কালাম বলেন, ‘আমার নামেও কে একটা একাউন্ট করে ভুল তথ্য দিয়ে লেখে। আমি জানি না। এটি নিন্দনীয়। এর প্রতিকার জরুরী।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 DakshinSunamganj24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com