বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৪৩ অপরাহ্ন

pic
নোটিশ :
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে!! জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২-৬৪৫৭০৫
উন্নয়নের ছোঁয়ায় বিকশিত হচ্ছে ডিগারকান্দিসহ তিন গ্রাম

উন্নয়নের ছোঁয়ায় বিকশিত হচ্ছে ডিগারকান্দিসহ তিন গ্রাম

নিজস্ব প্রতিবেদক, মো. শহিদ মিয়া:: দক্ষিণ সুনামগঞ্জের পূর্ব পাগলায় উন্নয়নের ছোঁয়ায় ক্রমশ বিকশিত হচ্ছে। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মযজ্ঞে বেশ কিছু উন্নয়ন ইতোমধ্যে তরান্বিত হয়েছে। ইউনিয়নের দামোধরতপী থেকে রাস্তাটি ডিগারকান্দি, নাজিমপুর ও ঘোড়াডুম্বুর গ্রামের প্রবেশ পথে দেড় কোটিরও বেশি মূল্যে বাগলা নদীর উপর একটি ব্রিজের কাজ দ্রুত সম্পন্ন হলে উন্নয়নের গতি আরো বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। ব্রিজের কাজ ছাড়াও ডিগারকন্দি গ্রামের দক্ষিণের রাস্তার আশি লক্ষাধিক টাকা ব্যয়ে গার্ডওয়াল, ডিগারকান্দি থেকে আক্তাপাড়া সংলগ্ন হাওরে বেরিবাঁধ, দামোধরতপী থেকে ডিগারকান্দি হয়ে নাজিমপুর, ঘোড়াডুম্বুর ও পিঠাপশি হয়ে সিলেট-সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের সাথে প্রায় ৫ কিলোমিটার সংযোগ রাস্তা, পল্লীবিদ্যুতের নতুন সংযোগ ও মসজিদের মাটি ভরাটের কাজসহ ছোট ছোট রাস্তা তৈরি, সংস্কার, টিউবওয়েল, স্যানেটারি ল্যাট্রিন ও সৌরবিদ্যুৎ প্রদান করায় গ্রামগুলো এখন ক্রমশ উন্নয়নের পথে হাটছে। এসব কাজ ছাড়াও ঘোড়াডুম্বুর হাফিজিয়া দাখিল মাদ্রাসায় লেগেছে উন্নয়নের ছোঁয়া। নাজিমপুর গ্রামের মসজিদ হতে প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত রাস্তার সংস্কারও মানুষের মাঝে আশার সঞ্চার করেছে।
স্থানীয় লোকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ডিগারকান্দি, নাজিমপুর ও ঘোড়াডুম্বুর এই তিন গ্রামে আগের তুলনায় এখন বেশ উন্নয়নের কাজ হচ্ছে। ডিগারকান্দি গ্রামে প্রায় ১কোটি ৭৭ লক্ষ টাকা ব্যয়ে একটি ব্রিজের কাজ হয়েছে। শেষ মূহুর্তের কাজ চলছে, বাকী আছে ব্রিজের দুই পাশে মাটি ভরাটের কাজ। এছাড়াও গ্রামের দক্ষিণের রাস্তায় প্রায় ৮০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মান করা হয়েছে গার্ডওয়াল, বেরিবাঁধের কাজ, পল্লীবিদ্যুতের সংযোগসহ আরো নানান উন্নয়নের কাজ হয়েছে এ গ্রামে। পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ, রাস্তার উন্নয়ন ও নানান ছোটবড় বরাদ্দসহ নানান উন্নয়ন কাজ হচ্ছে নাজিমপুর ও ঘোড়াডুম্বুর গ্রামে। এজন্য স্থানীয় এলাকাবাসী খুব খুশি ও আনন্দিত। এজন্য কাজ প্রত্যোক্ষ বা পরোক্ষভাবে বরাদ্দ পাচ্ছেন সুনামগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ সরকারের অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নানের মাধ্যমে। ডিগারকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি মো. তাহির আলী বলেন, ‘এম এ মান্নান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে আমাদের গ্রামে অনেক উন্নয়ন হয়েছে। আমরা তাকে আরেকবার সংসদে পাঠিয়ে আমাদের বাকী উন্নয়নগুলো সম্পন্ন করতে চাই।’
৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সমশের আলী বলেন, ‘এম এ মান্নান একজন সৎ, যোগ্য ও স্বজ্জন রাজনীতিবিদ। তাকে নির্বাচিত করে আমরা আমাদের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে চাই। গ্রামবাসী অনেক উপকারভোগী হয়েছেন। তাকেই আমরা ভোট দেবো। এবং আমাদের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার অনুরোধ করবো।
ঘোড়াডুম্বুর হাফিজিয়া দাখিল মাদ্রাসার পরিচালনা কমিটির সভাপতি আকিক মিয়া বলেন, ‘আমাদের গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে প্রায় ৩৯ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ইটসোলিং-এর কাজ করা হচ্ছে। মাদ্রাসায় বরাদ্দসহ প্রায় সব বরাদ্দই আসছে এম এ মান্নানের মাধ্যমে। তাই আমরা আবার এম এ মান্নানকে পুনরায় এমপি হিসেবে দেখতে চাই।’
পূর্ব পাগলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ফয়জুল করিম বলেন, ‘আমরা এ এলাকায় মান্নান সাহেবের সময়ে যে উন্নয়ন পেয়েছি বা এখনো পাচ্ছি তা এর আগে পাইনি। তাই এম এ মান্নানকে আবার বিজয়ী করতে আমরা মাঠে কাজ করছি।’

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 DakshinSunamganj24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com