রবিবার, ২৬ Jun ২০২২, ০৮:৩২ অপরাহ্ন

pic
নোটিশ :
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে!! জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২-৬৪৫৭০৫
গাজায় সংঘর্ষ, নিহত ১২ ফিলিস্তিনি

গাজায় সংঘর্ষ, নিহত ১২ ফিলিস্তিনি

নিউজ ডেস্ক:
ফিলিস্তিনে গাজা উপত্যকার ইসরায়েল সীমান্তে সংঘর্ষে কমপক্ষে ১২ ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারী নিহত এবং কয়েকশ’ফিলিস্তিনি আহত হয়েছে। সীমান্ত বরাবর ফিলিস্তিনিদের ডাক দেওয়া বিশাল বিক্ষোভে শুক্রবার কয়েকটি স্থানে ইসরায়েলের নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে এ সংঘর্ষ ঘটে। ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সংঘর্ষে ১২ জন নিহত এবং ৭৫০ জন ফিলিস্তিনি আহত হওয়ার খবর জানিয়েছে। ইসরায়েলের ছোড়া গুলিতেই বেশির ভাগ ফিলিস্তিনি আহত হয়েছে। ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীরা সীমান্ত বেষ্টনী বরাবর ৫ টি জায়গায় সমবেত হয়ে বিক্ষোভ করছে। ছয় সপ্তাহব্যাপী বিক্ষোভের পরিকল্পনার অংশ হিসাবে তারা সেখানে তাঁবু খাটিয়ে অবস্থান নিয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা। বিক্ষোভকারীদের সংখ্যা আনুমানিক ৩০ হাজার বলে জানিয়েছে ইসরায়েলের সেনাবাহিনী। ১৯৪৮ সালে শরণার্থী হওয়া লাখ লাখ মানুষকে ইসরায়েলের দখলে থাকা এলাকায় ফিরতে বাধা দেওয়ার প্রতিবাদে সীমান্ত বরাবর এ বিক্ষোভের ডাক দেওয়া হয়েছে। শুরুর দিন হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে ৩০ মার্চকে; ১৯৭৬ সালের এই দিনে ভূমি দখলের প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে ছয় বিক্ষোভকারী নিহত হন। ওই ‘ভূমি দিবস’ উপলক্ষেই বিক্ষোভে নেমেছে ফিলিস্তিনিরা। ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলনের দল হামাস ছয় সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি ‘গ্রেট মার্চ অব রিটার্ন’ এর ডাক দিয়েছে। হামাসের অভিযোগ, ফিলিস্তিনিদের ভয় দেখাতে এবং বিক্ষোভ থেকে দূরে সরিয়ে রাখতেই ইসরায়েল গোলা ছুড়ছে। ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, ‘যুদ্ধে জড়ানোর উস্কানি দিতেই’ হামাসের এ বিক্ষোভের ডাক। বিক্ষোভকে কেন্দ্র করে কোনো সহিংসতার জন্য হামাস এবং বিক্ষোভে অংশ নেওয়া ফিলিস্তিনি সংগঠনগুলোই দায়ী হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছে তেল আবিব। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) বলেছে, সীমান্ত বেষ্টনী বরাবর ৫ টি স্থানে প্রায় ১৭ হাজার ফিলিস্তিনি অবস্থান নিয়েছে। দাঙ্গা-হাঙ্গামা ঠেকাতে সেনারা কেবল সীমান্ত বেষ্টনী ভাঙার চেষ্টাকারীদের লক্ষ্য করেই গোলা ছুড়ছে বলে জানিয়েছে আইডিএফ। ফিলিস্তিনিদেরকে সীমান্ত থেকে দূরে সরিয়ে দিতে ইসরায়েল টিয়ার গ্যাস ব্যবহারের পাশাপাশি ট্যাংক এবং স্নাইপারও মোতায়েন করেছে বলে জানানো হয়েছে বিবিসি’র খবরে। সংঘর্ষে নিহতদের মধ্যে ১৬ বছরের এক বালক আছে বলে জানিয়েছেন ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। তারা জানান, শুক্রবার বিক্ষোভ শুরুর আগেই খান ইউনিসে ২৭ বছর বয়সের এক কৃষক ইসরায়েলের ট্যাংকের গোলায় নিহত হয়েছে।
হতাহতের ঘটনার জন্য শনিবার জাতীয় শোক দিবস ঘোষণা করেছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। ইসরায়েলের এক সামরিক কর্মকর্তা নিহত ফিলিস্তিনিদের অন্তত দুইজন হামাস সদস্য বলে দাবি করেছে।
বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশে হামাসের ঊর্ধ্বতন রাজনৈতিক নেতা ইসমাইল হানিয়া বলেছেন, “আমরা ফিলিস্তিনি ভূমির এক কণাও ছাড়ব না।”

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 DakshinSunamganj24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com